কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক ২০২৪ | কৃষক বন্ধু টাকা ঢুকেছে কিনা

WhatsApp Channel Follow Now
Telegram Group Follow Now

Last updated on January 25th, 2024 at 04:14 pm

আপনারা অনেকেই কৃষক বন্ধু টাকা ঢুকেছে কিনা বা কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক করার নিয়ম সম্পর্কে কোনরকম ধারণা না থাকার জন্যে নানান রকম সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন। আজকের এই নিবন্ধে কৃষক বন্ধু প্রকল্প কি বা কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক অনলাইন করার সঠিক পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে পারবেন।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের অধীনে থাকা কৃষকরা রবি ও খরিফ ফসল চাষের জন্য দুইটি কিস্তিতে ৪০০০ থেকে ১০০০০ টাকা পর্যন্ত পেয়ে থাকেন। যদি এই প্রকল্পের অধীনে থাকা কৃষকরা ৬০ বছরের মধ্যে মারা যান, তাহলে পরে সেক্ষেত্রে রাজ্য সরকার এককালীন ২ লাখ টাকা আর্থিক সাহায্য দিয়ে থাকেন মৃত কৃষকের পরিবারকে।

২০১৯ এর জানুয়ারী মাসে কৃষি বিভাগ, পশ্চিমবঙ্গ সরকার “কৃষক বন্ধু” (“Krishak Bandhu”) প্রকল্পটি চালু করেছে। এর উদ্দেশ্য হল পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত কৃষকদের কৃষি কাজের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা। এবং কৃষকদের অকাল মৃত্যুর ক্ষেত্রে খামার পরিবার গুলিকে ২ লক্ষ টাকা দিয়ে সামাজিক নিরাপত্তা প্রদান করা। সম্প্রতি এই স্কিমটি পুনরায় চালু করা হয়েছে এবং কৃষক বন্ধু (নতুন) হিসাবে নামকরণ করা হয়েছে। নতুন প্রকল্পটি পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী ১৭ জুন ২০২১-এ চালু করেছেন।

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক | Krishak bandhu status check

Table of Contents show

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক ২০২৪

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক ২০২৩

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক করার জন্যে গুগলে গিয়ে krishakbandhu লিখে সার্চ করলে আপনার সামনে কৃষক বন্ধুর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট টি চলে আসবে।

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক

এইবার ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে নথিভুক্ত কৃষকের তথ্য” নামাঙ্কিত অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক

ক্লিক করার পর একটি সম্পূর্ণ নতুন পেজ আপনার সামনে ওপেন হয়ে যাবে। উল্লিখিত নতুন পেজটিতে আপনার ভোটার আইডি নাম্বার ও আঁধার নাম্বার চাওয়া হবে।

Krishak Bandhu Status Check

আপনি যদি ভোটার কার্ড নাম্বার দিয়ে কৃষক বন্ধু প্রকল্পের স্ট্যাটাস চেক করতে চান তাহলে পরে নির্দিষ্ট বক্সে ভোটার নাম্বার টি টাইপ করে দিতে হবে। তার জন্য আপনার কাছে বৈধ ভোটার কার্ড অবশ্যই থাকতে হবে।

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক ভিডিও

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক করার একটু ভিডিও নিচে দেওয়া হলো ভিডিও টি প্লে করলে কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস অনলাইনে কিভাবে চেক করতে হয় তার সম্পূর্ণ নিয়ম গুলো সমন্ধে জানতে পারবেন।

Video Source – Youtube

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক অনলাইন

(1) গুগোলে সার্চ করুন কৃষক বন্ধু।
(2) কৃষক বন্ধু ডট নেট ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।
(3) ওয়েবসাইটের দ্বিতীয় নম্বর অপশন নথিভুক্ত কৃষকের তথ্য বাটন টি ক্লিক করুন।
(4) ভোটার কার্ড অপশনে ক্লিক করুন।
(5) আপনার ভোটার কার্ডের নম্বরটি লিখুন এবং পাশে দেওয়া I’m not a robot লেখা বক্সটিতে ক্লিক করুন।
এবার আপনি আপনার বর্তমান কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস দেখতে পাবেন।

কৃষক বন্ধু চেক লিস্ট 2024

কৃষক বন্ধু লিস্ট বা তালিকা চেক করার জন্য আপনাকে আপনার নিকটবর্তী কৃষক বন্ধু অফিসে গিয়ে তালিকা বা লিস্ট চেক করতে হবে। তাছাড়া অনলাইনেও স্ট্যাটাস চেক করলে বুঝতে পারবেন আপনার বর্তমান অবস্থা।

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক অনলাইন আধার কার্ড

Google এ কৃষক বন্ধু প্রকল্প বা Krishakbandhu.net লিখে search করুন।

এরপর Krishakbandhu.net অফিসিয়াল ওয়েবসাইট টি ওপেন করুন।

এইবার “নথিভুক্ত কৃষকের তথ্য” এই লেখাটির ওপরে ক্লিক করে ওপেন করুন।

আপনার আধার কার্ড নম্বর (Adhar card) টি লিখুন এবং পাশে I’m not a robot লেখা বক্সটিতে ক্লিক করুন।

তারপর সার্চ বাটন (Search) এ ক্লিক করুন।

এখন আপনার কৃষক বন্ধু প্রকল্প লিস্ট দেখতে পারবেন এবং আপনার কৃষক বন্ধু আইডি নম্বর টি দেখতে পাবেন।

আপনার কৃষক বন্ধু প্রকল্পটি সম্পূর্ণ হয়ে গেলে approved দেখাবে ।

এর সাথে হেল্পলাইন নাম্বার এ ফোন করেও জানতে পারবেন আপনার কৃষক বন্ধু সম্পর্কে। হেল্পলাইন নম্বর হলো (১) ৮৫৯৭৯৭৪৯৮৯ (২) ৬২৯১৭২০৪০৬

প্রকল্পের নাম কৃষক বন্ধু
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
উদ্বোধন করেনমুখ্য মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
বিভাগকৃষি বিভাগ পশ্চিমবঙ্গ সরকার
কবে চালু হয়জানুয়ারি ২০১৯
উপোভোক্তা পশ্চিমবঙ্গের কৃষক গণ
সুবিধাকৃষক বন্ধু প্রকল্পের অধীনে থাকা কৃষকরা রবি ও খরিফ ফসল চাষের জন্য দুইটি কিস্তিতে ৪০০০ থেকে ১০০০০ টাকা পর্যন্ত পেয়ে থাকেন।
ওয়েবসাইট krishakbandhu.net

কৃষক বন্ধু টাকা ঢুকেছে কিনা

অনেকেই জানতে চান কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা কবে পাওয়া যাবে, এটি আপনি অনলাইনেও চেক করতে পারবেন।

উপরে লেখা ধাপগুলো ঠিকঠাক ভাবে অনুসরণ করলেই আপনি আপনার কৃষক বন্ধু প্রকল্পের স্ট্যাটাস সঠিকভাবে জানতে পারবেন।

যদি আপনার আবেদনের স্ট্যাটাসে “approved” শব্দটি লেখা থাকে, তাহলে বুঝতে হবে আপনার আবেদনটি গৃহীত হয়েছে।

যদি আপনার আবেদনের স্ট্যাটাসে “transaction success” লেখা থাকে, তাহলে বুঝতে হবে প্রকল্পের টাকা আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকে গেছে।

যদি আপনার আবেদনের স্ট্যাটাসে “No Data Found” লেখা থাকে, তাহলে বুঝতে হবে আপনার আবেদনের স্ট্যাটাস এখনও সার্ভারে আপলোড করা হয়নি।

ওয়েবসাইট খোলার পর স্ট্যাটাস যদি “No Data found” শো করে, তাহলে আপনি আপনার আবেদন সম্পর্কে বিশদ বিবরণের জন্য আপনার ব্লকের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর অফ এগ্রিকালচার এর অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন।

সাধারণত এই প্রকল্পের খরিফ শস্যের টাকা জুন এবং রবি শস্যের টাকা নভেম্বর এ দেওয়া হয়ে থাকে।

তাছাড়া প্রতি মরশুমের খারিফ এবং রবি স্থিরকিত একটি দিন পর্যন্ত নথিভুক্ত উপভোক্তাদের তালিকা কৃষক বন্ধু পোর্টাল থেকে সংগ্রহ করে ওয়েবেল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সময় ব্যাংকের কাছে সরাসরি সহায়তা প্রধানের জন্য পাঠানো হয়।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সমবায় উপভোক্তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট যাচাই করে অনলাইনে সরাসরি টাকা পাঠিয়ে দেয়। যদি কোন রকম ভুল একাউন্ট নাম্বার থেকে থাকে তাহলে সংশোধনের জন্য পাঠানো হয়।

কৃষক বন্ধুর টাকা ঢুকেছে কি না তা জানার সব থেকে সহজ উপায় হল ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের স্টেটমেন্ট চেক করা। অথবা আপনার ফোনের মেসেজ বক্স চেক করুন। যদি আপনার ফোনের মেসেজে অথবা অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট ৪০০০ টাকার ঢোকার মেসেজ আসে তাহলে জানবেন যে কৃষক বন্ধুর টাকা ঢুকেছে।

কৃষকবন্ধু প্রকল্প এর জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র

আধার কার্ড
প্যান কার্ড
মোবাইল নম্বর
ব্যাংক বিবরণ
ROR সত্যায়িত কপি
রেশন কার্ড
পাসপোর্ট সাইজের ছবি, ইত্যাদি।

কৃষকবন্ধু প্রকল্প এর সুবিধা

এই প্রকল্পের অধীনে, সমস্ত উপকারভোগী কৃষকদের জন্য ১০০০০ টাকার ফসল বীমা দুটি কিস্তিতে উপলব্ধ করা হবে।
এই স্কিমের মাধ্যমে আপনাকে ২ লক্ষ টাকার জীবন বীমাও দেওয়া হবে।
প্রদত্ত দুর্ঘটনার সময় সমস্ত কৃষকদের জন্য বীমা কভারেজ উপলব্ধ করা হবে।
মৃত্যুর ১৫ দিন পর পর্যন্ত আপনাকে বীমা কভার প্রদান করা হবে।
পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত সুবিধাভোগীদের জন্য শস্য বীমার প্রিমিয়ামও উপলব্ধ করা হবে।
এই প্রকল্পের জন্য ৩০০০ কোটি টাকার বাজেট নির্ধারণ করা হয়েছে।
এই পরিমাণ সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আপনার জন্য উপলব্ধ করা হবে।
ফসল বীমার প্রথম কিস্তি জুন মাসে আপনার জন্য উপলব্ধ করা হবে।
এই প্রকল্পের অধীনে, ফসল বীমার দ্বিতীয় কিস্তির পরিমাণ নভেম্বরে উপলব্ধ করা হবে।

কৃষকবন্ধু প্রকল্প এর জন্য কীভাবে অনলাইনে আবেদন করবেন?

প্রথমত, আপনাকে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
যার লিঙ্ক হল- www.krishakbandhu.net
হোম পেজে, আপনাকে ‘কৃষি বিভাগ’- এ ক্লিক করতে হবে ।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনার সামনে লগইন পৃষ্ঠা খুলবে।
এর পরে, আপনাকে ‘সাইন আপ’ এ ক্লিক করতে হবে ।
তারপর আপনার সামনে রেজিস্ট্রেশন ফর্ম খুলবে।
আপনাকে সঠিকভাবে জিজ্ঞাসা করা সমস্ত বিবরণ পূরণ করতে হবে।
পূরণ করার পর সাবমিট এ ক্লিক করতে হবে।
এর পরে আপনাকে একটি লগইন আইডি এবং পাসওয়ার্ড প্রদান করা হবে।
এইভাবে, আপনি সহজেই এই স্কিমের জন্য আবেদন করতে পারেন।

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক ওয়েস্ট বেঙ্গল

স্ট্যাটাসের জন্য, আপনাকে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এ যেতে হবে।
তাহলে ওয়েবসাইটের হোম পেজটি আপনার সামনে খুলবে।
হোম পেজে, আপনাকে ‘লগইন ইন’ এ ক্লিক করতে হবে ।
এর পরে, আপনাকে আপনার লগইন বিবরণ পূরণ করতে হবে।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনাকে ‘অ্যাপ্লিকেশন ফর্মের স্থিতি পরীক্ষা করুন’- এ ক্লিক করতে হবে ।
ক্লিক করার পর আপনার স্ট্যাটাস আপনার সামনে খুলে যাবে।

কৃষকবন্ধু প্রকল্প এ লগ ইন করার প্রক্রিয়া কী?

লগ ইন করতে, আপনাকে অনলাইন পোর্টালে যেতে হবে।
হোম পেজে, আপনাকে ‘কৃষকবন্ধু সম্পর্কে’ ক্লিক করতে হবে ।
তারপর আপনাকে ‘লগইন’ বিকল্পটি নির্বাচন করতে হবে ।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনাকে আপনার ব্যবহারকারীর নাম এবং পাসওয়ার্ড লিখতে হবে।
এই বিবরণগুলি পূরণ করার পরে, আপনাকে লগইন এ ক্লিক করতে হবে।
এইভাবে আপনি এই পোর্টালে লগ ইন করতে পারেন।

কৃষকবন্ধু প্রকল্প ২০২৩ এ কিভাবে এজেন্ট লগইন করবেন?

এই লগইনের জন্য আপনাকে কৃষক বন্ধুর ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
তারপর হোম পেজে আপনাকে ‘কৃষকবন্ধু সম্পর্কে’ ক্লিক করতে হবে ।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনাকে ‘এজেন্ট লগইন’ নির্বাচন করতে হবে ।
নির্বাচন করার পরে, আপনাকে আপনার ব্যবহারকারীর নাম এবং পাসওয়ার্ড লিখতে হবে।
পূরণ করার পর লগইন এ ক্লিক করতে ভুলবেন না।
ক্লিক করার পর আপনি লগ ইন হবেন।

ডেথ বেনিফিট অ্যাপ্লিকেশান ক্লেইম ফর্ম কীভাবে ডাউনলোড করবেন?

প্রথমত, আপনাকে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে।
তারপর আপনাকে এই ফর্মটি অনুসন্ধান করতে হবে।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনাকে ‘অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ডাউনলোড করুন’ নির্বাচন করতে হবে ।
নির্বাচন করার পরে আপনাকে এই ফর্মটির একটি প্রিন্টআউট নিতে হবে।
তারপর এই ফর্মে, আপনাকে সঠিকভাবে জিজ্ঞাসা করা সমস্ত বিবরণ পূরণ করতে হবে।
এর সাথে, আপনাকে সমস্ত নথি সংযুক্ত করতে হবে।
তারপর এই ফর্মটি আপনার জেলার ব্লকের সহকারী কৃষি পরিচালকের কাছে জমা দিতে হবে।

কৃষক বন্ধু প্রকল্প এর পাসওয়ার্ড পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়া কী?

পাসওয়ার্ড পুনরুদ্ধার করতে, অনলাইন পোর্টালে যান।
যার হোম পেজে ‘কৃষকবন্ধু সম্পর্কে’ নির্বাচন করুন ।
এর পর ‘Forgot your Password’ এ ক্লিক করুন ।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনাকে আপনার ইমেল আইডি লিখতে হবে এবং Send OTP-এ ক্লিক করতে হবে।
তারপর আপনার ইমেইলে একটি ওটিপি পাঠানো হবে যা আপনাকে প্রবেশ করতে হবে।
প্রবেশ করার পর আপনাকে আপনার নতুন পাসওয়ার্ড দিতে হবে।
পূরণ করার পর কনফার্ম এ ক্লিক করতে ভুলবেন না।
এর পরে আপনার পাসওয়ার্ড পুনরুদ্ধার করা হবে।

কৃষক বন্ধু প্রকল্প চেক করার নিয়ম

এই প্রকল্প চেক করার জন্য অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যান।
তাহলে ওয়েবসাইটের হোম পেজটি আপনার সামনে খুলবে।
তারপর আপনাকে ‘কৃষকবন্ধু’- এ ক্লিক করতে হবে ।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনাকে আপনার লগইন বিবরণ দিয়ে লগ ইন করতে হবে।
লগইন করার পর, আপনাকে ‘সার্চ বেনিফিশিয়ারি’- এ ক্লিক করতে হবে ।
পরবর্তী পৃষ্ঠায়, আপনাকে আপনার ব্লক এবং জেলা নির্বাচন করতে হবে।
তারপর আপনার ডিসপ্লে স্ক্রিনে একটি পিডিএফ তালিকা খুলবে।
এর পরে, আপনি সহজেই অনুসন্ধান করে আপনার নাম পরীক্ষা করতে পারেন।

Krishak Bandhu helpline number & e-mail ID

Direct Helpline No.

8336957370 / 8597974989 / 6291720406

Time: 10 am – 6 pm

For any Query

krishak.bandhu@ingreens.in

কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক ২০২৪ এবং কৃষক বন্ধু টাকা ঢুকেছে কিনা সম্পর্কে সমস্ত বিবরণ পেতে চান, তাহলে পরে আমাদের ওয়েবসাইট টি সাবস্ক্রাইব করতে পারেন নমস্কার।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

Leave a Comment